সুখবর এবার ১,০০০ প্রবাসী কর্মী নেবে সৌদি আরব, বেতন সাড়ে চার লাখ

এবার মধ্যপ্রাচ্যের ধনী দেশ সৌদি আরবে প্রবাসী কর্মীর চাহিদা সব সময় শীর্ষে। ধারাবাহিকভাবে দেশটি প্রবাসী কর্মী নিয়োগের ঘোষণা দিয়ে থাকে। সেই সঙ্গে দেশটিতে যেতে বিদেশি কর্মীদের আগ্রহ থাকে ব্যাপক। সম্প্রতি স্বাস্থ্যসেবা খাতে ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে বিদেশ থেকে নার্স নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি।

ধাপে ধাপে বিভিন্ন দেশ থেকে নার্স নেবে দেশটি। তবে এবার প্রথমধাপে এক হাজার কর্মী নেবে দক্ষিণ এশিয়ার দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা থেকে। খবর গালফ নিউজ। এদিকে শ্রীলঙ্কার শ্রম মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আগামী ১২ মাসে সৌদি আরবে কর্মসংস্থানের সুযোগ পাবেন এক হাজার নার্স। এরই মধ্যে গত সপ্তাহে কলম্বোয় প্রথম দফার নিয়োগ সম্পন্ন হয়েছে।

এদিকে দেশটির শ্রম ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মিডিয়া সেক্রেটারি সঞ্জয় নাল্লাপেরুমা জানিয়েছেন, চিকিৎসা খাতে ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে শ্রীলঙ্কাসহ অন্যান্য দেশ থেকে মেডিকেল ও প্যারামেডিকেল কর্মী নিয়োগ করতে চাইছে রিয়াদ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রাথমিকভাবে বিদেশ থেকে এক হাজার নার্স নিয়োগের লক্ষ্য নিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। প্রথম পর্যায়ে শ্রীলঙ্কায় ৪০০ জন আবেদনকারীর মধ্য থেকে বিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রিধারী ৯৫ জন নার্সকে নির্বাচিত করা হয়েছে।

এসব নার্স সৌদি আরবের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে দেশটির বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে কাজ করবেন। নিয়োগের পরবর্তী ধাপ শুরু হবে আগামী আগস্ট মাসে। গালফ নিউজের খবর অনুসারে, উল্লেখযোগ্য বিনিয়োগের কারণে সৌদি আরবে অত্যন্ত চাহিদাসম্পন্ন পেশা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে নার্সিং।

সেখানে নার্সদের গড় আয় মাসে ৫ হাজার ২৫০ রিয়াল, শ্রীলঙ্কার মুদ্রায় যার পরিমাণ ৪ লাখ ৩০ হাজার রুপি। আর বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় ১ লাখ ৫১ হাজার টাকা। রিয়াদের নার্স নিয়োগের এই উদ্যোগ শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক সংকট কাটাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা হচ্ছে।

খুশীর এই সুখবরটি শেয়ার দিয়ে সবাইকে জানিয়ে দিন।